C:UsersProtapDesktopUntitled.jpg

Indian Tax Structure

Advertisements

Indian Tax Structure

Indian Tax Structure – ভারতের কর ব্যবস্থা

Indian Tax Structure 1

Indian Tax Structure 3

কর ভারতের বিভিন্ন আয়ের অন্যতম প্রধান উৎস। ভারতবর্ষে তিনটি স্তরে জনগন থেকে কর আদায় করা হয় –

  • কেন্দ্র সরকার – Income tax, Custom Duties, Central Excise duty.
  • রাজ্য সরকার – Tax on Agricultural Income, Professional Tax, Value Added Tax, State Excise duty, Stamp Duty.
  • লোকাল অথোরিটি -Property Tax, Water Tax, Other Taxes on drainage and Small Services.

C:UsersProtapDesktopUntitled.jpg

ভারতের সংবিধান 265 ধারা অনুযায়ী – কোন আইন ছাড়া কারো উপর কোন কর প্রযোজ্য করা যাবে না বা তার থেকে কোন কর আদায় করা হবে না। সুতরাং কর আদায় করতে গেলে নির্দিষ্ট আইনের প্রয়োজন।

ভারতবর্ষে যে আইন গুলি কর আদায় করতে প্রযোজ্য হয় তা নিচে উল্লেখ করা হল –

  • Income Tax Act, 1961,
  • বিভিন্ন Finance Acts যা প্রত্যেক বছর বাজেট সেশনের সময় পাস করা হয়।
  • Central Excise Act, 1944, Central Sales Tax, 1956, Central Excise Tariff Act, 1985, Central Goods and Service Tax Act, 2017 ইত্যাদি।

কর দুধরনের হয় – প্রত্যক্ষ কর এবং পরোক্ষ কর।

প্রত্যক্ষ করঃ

বাৎসরিক আয়ের উপর সরাসরি আদায়যোগ্য করের নাম “প্রত্যক্ষ কর”।

             উদাহরন – আয়কর (Income Tax), কর্পোরেশন ট্যাক্স, উপহার কর (Gift Tax), সম্পদ কর (Wealth Tax) ইত্যাদি।

  • সাধারনত নিন্মলিখিত ৭ ধরনের Persons এর বাৎসরিক আয়ের উপর প্রত্যক্ষ কর আদায় করা হয়।

Persons এর বিভিন্ন ভাগ

কি ধরনের প্রত্যক্ষ কর

Individual

ইনকাম ট্যাক্স
Hindu Undivided Family

ইনকাম ট্যাক্স

Partnership Firm

ইনকাম ট্যাক্স
Association of Persons

ইনকাম ট্যাক্স

Body of Individuals

ইনকাম ট্যাক্স
Artificial Juridical Persons

ইনকাম ট্যাক্স

Company

কর্পোরেশন ট্যাক্স

Persons এর বিভিন্ন ভাগ ও তাদের বাৎসরিক আয়ের উপর যে কর প্রযোজ্য হয় ও তার স্ল্যাব বা প্রযোজ্যতা প্রত্যেক বছর বাজেট এর সঙ্গে ঠিক করা হয়। উদাহরন স্বরূপ – Individual এর ক্ষেত্রে Assessment Year ২০১৮-১৯ এ কর প্রযোজ্যতা –

বাৎসরিক আয়কর রেট
২,৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত
২,৫০,০০০ টাকা থেকে ৫,০০,০০০ টাকা৫%
৫,০০,০০০ টাকা থেকে ১০,০০,০০০ টাকা২০%
১০,০০,০০০ টাকার অধিক৩০%

উল্লেখ্য, যে আয় করে তার আয়ের উপর ভিত্তি করে তার থেকেই আয়কর নেওয়া হয়। নিচের ছবিটি থেকে তা আরো ভালো বোঝা যাবে-

Image result for direct tax

ভারতে প্রত্যক্ষ কর সংক্রান্ত সমস্ত বিষয় দেখাশোনা করার দায়িত্ব CBDT ( Central Board of Direct Tax) এর উপর থাকে।

Image result for cbdt

  • CBDT, অর্থমন্ত্রক এর আয়করবিভাগ (Income Tax Department) এর অন্তর্ভুক্ত।
  • যার প্রধান কাজ প্রত্যক্ষ কর নিয়ে ভারত সরকারের সমস্ত Policy কেবাস্তবায়িত করা।

Indirect Tax (পরোক্ষ কর) কীঃ

  • যে সমস্ত কর পরোক্ষভাবে নাগরিক দের থেকে পণ্য ও সেবার (Products and services) মাধ্যমে আদায় করা হয়ে তাকে পরোক্ষ কর বলা হয়।
  • সাধারনত কোন পণ্য ও সেবা (Products and services) যে প্রথম তৈরী করে বা প্রদান করে, সে ভোক্তা (Consumers) থেকে এই পরোক্ষ কর সংগ্রহ করে এবং সরকারী কোষাগারে জমা করে।
  • উদাহরন – এক্সাইজ্, ভ্যাট ও সারভিস্ ট্যাক্স, কাস্টোম কর ইত্যাদি।
  • উল্লেখ্য এক্সাইজ্, ভ্যাট ও সারভিস্ ট্যাক্স এখন বিলুপ্ত হয়ে গেছে এবং এদের পরিবর্তে এখন GST বা Goods and Service Tax চালু হয়েছে৷

ভ্যাট (ভ্যালু এডেড ট্যাক্স)-

  • ভ্যাট এক প্রকারের পরোক্ষ কর।
  • কোনো রাজ্যে বিক্রি করা পণ্য ও সেবার (Products and services) ওপর এই কর আরোপ করা হয়।
  • কোন জিনিস (Product) বা সেবা (Services) যখন কেউ কোন বিক্রেতার কাছ থেকে কেনে, তখন আসল দাম এর সঙ্গে ভ্যাট বাবদ কিছু অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করে যা সেই জিনিস বা সেবার মোট দামের অন্তর্ভুক্ত থাকে।
  • বিক্রেতা পণ্যের মূল্য নিজে গ্রহণ করেন,আর ভ্যাট সরকারী কোষাগারে জমা প্রদান করেন।

Image result for cbic logo new

  • EXCISE: ভারতে উৎপাদিত দ্রব্যের উপর সংগৃহিত কর।
  • CUSTOM: বিদেশ থেকে কোনো দ্রব্য আমদানি করা হলে তার উপর এই ধরনের কর প্রযোজ্য হয়।

ভারতে পরোক্ষ কর সংক্রান্ত সমস্ত বিষয় দেখাশোনা করার দায়িত্ব CBEC ( Central Board of Excise and Customs) এর উপর থাকে। যা অর্থমন্ত্রক এর অন্তর্ভুক্ত।

GST চালু হওয়ার পর CBEC কে নতুন করে নামকরন করা হয় Central Board of Indirect Taxes and Customs (CBIC) যার প্রধান কাজ GST নিয়ে সরকারের সমস্ত পলিসি কে বাস্তবায়ন করা।

জি.এস.টি. কী?

গুডস্ এন্ডস সার্ভিস ট্যাক্স (জিএসটি) হলো একটি পরোক্ষ কর (Indirect Tax)। গুডস্ এন্ডস সার্ভিস ট্যাক্স (জিএসটি) বা পণ্য ও সেবা কর যা প্রযোজ্য হবে পণ্য ও পরিষেবায় (ProductService) ৷

Image result for gst

  • উদ্দ্যশ্যঃ পুরো অর্থনৈতিক কর ব্যবস্থায় সরলীকরণ৷
  • কবে এই আইন পাস হয়ঃ ২০১৭ সালের ২৯ শে মার্চ ।
  • কবে থেকে চালু হয়েছেঃ ২০১৭ সালের ১ জুলাই ।
  • সংবিধানের ১২২ তম সংশোধনী জিএসটি বিলটি ১০১ তম সংশোধনী আইন হিসাবে পাশ হয়।

জিএসটি কেন?

  • জিএসটি অর্থাৎ এক দেশ, এক কর। অর্থাৎ আর আলাদা করে বিভিন্ন ভাগে কোনও কর দিতে হবে না ক্রেতাদের। ক্রেতাকে একটি পণ্য কিনতে বা পরিষেবা নিতে আগে একাধিক ট্যাক্স বা কর দিতে হত। পরিষেবা কর, উৎপাদন শুল্কের মতো কিছু কর নিত কেন্দ্র। রাজ্যগুলি নিত সেলস ট্যাক্স, লাক্সারি ট্যাক্স, ভ্যাটের মতো কর। আলাদাভাবে না নিয়ে, এক ছাতার তলায় সব করকে আনতেই গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স বা পণ্য ও পরিষেবা করের জন্ম। অর্থাৎ, ক্রেতা একটি পণ্য কিনলে বা পরিষেবা নিতে চাইলে যে একটিমাত্র কর দেবেন, সেটাই জিএসটি।

কারা এই ট্যাক্স দেবে?

  • পণ্য উৎপাদক ও বিক্রেতা৷ এছাড়া বিভিন্ন পরিষেবা (Service) প্রদানকারী যেমন টেলিকম সেবা প্রদানকারী, পরামর্শ-কারী consultants), চাটার্ড এ্যাকাউণ্ট্যাণ্টস্ ইত্যাদি৷ যাইহোক, পরোক্ষ কর হিসাবে শেষপর্যন্ত উপভোক্তার ঘাড়েই এর বোঝা এসে পড়বে বর্তমান কর ব্যবস্থার মত৷

কত রকম জিএসটি আছেঃ

  • CGST(Central Goods and Service Tax) যা কেন্দ্রীয় সরকার গ্রহণ করবে
  • SGST (State Goods and Service Tax) যা রাজ্য সরকার গ্রহণ করবে৷
  • IGST (Integrated Goods and Service Tax) যা প্রযোজ্য হবে আন্তঃ রাজ্য পণ্য বিক্রয়ের জন্য । এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে পণ্য বিক্রয়ের জন্য এর ক্ষেত্রে এই ধরনের কর প্রযোজ্য হবে।

C:UsersProtapDesktopUntitled2.jpg

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + twelve =

error:
Scroll to Top